ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪০৯ রানে থামালো টাইগাররা

0
6


আলোর যুগ খেলা: ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনের পুরোটা ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের দখলে। এনক্রুমাহ বোনারের উইকেট হারালেও সেশনের ২৯ ওভারে ১০২ রান তুলে নিয়েছিল সফরকারীরা। ধারাবাহিকতা ধরে রেখে দ্বিতীয় সেশনেও দ্রুত রান তুলতে থাকে তারা। তবে বল হাতে কামব্যাক করেছেন আবু জায়েদ রাহি ও তাইজুল ইসলাম। অবশ্য এরপরও ক্যারিবীয়রা ঠিকই দাঁড় করিয়েছে ৪০৯ রানের বড় সংগ্রহ।

সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়েও তা করতে পারেননি বোনার, জশুয়া ডা সিলভা ও আলঝারি জোসেফ। বোনার ৯০, জশুয়া ৯২ ও জোসেফ থেমেছেন ৮২ রান করে। এ তিনজনের ব্যাটেই মূলত শেষ ৫ উইকেটে ২৩১ রান যোগ করতে পেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষদিকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ২৫ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট নিয়েছেন রাহি-তাইজুলরা।

আগেরদিন করা ৫ উইকেটে ২২৩ রান নিয়ে আজকের দিনের খেলা শুরু করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কুয়াশাচ্ছন্ন সকালে আজ শুরু থেকেই চেপে ধরবে বাংলাদেশ- এমনটাই ছিল সকলের প্রত্যাশা। কিন্তু হয়েছে ঠিক উল্টোটা। আবু জায়েদ রাহি, তাইজুল ইসলামদের আলগা বোলিংয়ের সুযোগ কাজে লাগিয়ে দিনের শুরু থেকেই সহজ রান পেয়েছেন এনক্রুমাহ বোনার ও জশুয়া ডা সিলভা।

দিনের প্রথম বলটিই পায়ে করেন রাহি। রানের সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেননি হাফসেঞ্চুরি করে অপরাজিত থাকাবোনার, অনসাইডে ঠেলেই নিয়ে নেন তিনটি রান, স্ট্রাইক পান জশুয়া। এক বল পর রাহির ভেতরে ঢোকা বল আঘাত হানে জশুয়ার প্যাডে। আম্পায়ার সৈকত আউট দেননি। বাংলাদেশ রিভিউ নিয়েও সফল হয়নি। ঠিক পরের বলেই পয়েন্টে দুর্দান্ত বাউন্ডারি হাঁকান জশুয়া।

প্রথম ওভারেই পাওয়া এ আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে ষষ্ঠ উইকেট জুটিকে আরও দৃঢ় করছেন জশুয়া ও বোনার। শুরুর দিকে উইকেট না পাওয়ায় দিনের সাত ওভার পর একসঙ্গে রাহি ও তাইজুলকে আক্রমণ থেকে সরিয়ে দেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। দুই প্রান্ত থেকে দুই অফস্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসানকে আনা হয় জুটি ভাঙতে। এই পরিকল্পনায় মেলে সাফল্য।