ভালোবাসা আর অশ্রুজলে একজন সফল অধ্যক্ষের বিদায় সংবর্ধনা

0
1704


আলোর যুগ রিপোর্ট: বর্ণাঢ্য আয়োজন, শ্রদ্ধা আর হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় রাজধানীর সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ কর্নেল কাজী শরীফ উদ্দিনকে ‘বিদায় সংবর্ধনা’ দিলো স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সহকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ। এ উপলক্ষ্যে আজ (রোববার) দিনভর স্কুল প্রাঙ্গণে বর্নিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। চৌকস সেনা কর্মকর্তা ও আদর্শবান শিক্ষক হিসেবে পরিচিত কর্নেল শরীফের অসাধারণ গুনে মুগ্ধ শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্বজনরা তাঁর বিদায়বেলায় চোখের অশ্রু ঝরিয়েছেন। প্রিয় বিদ্যাপিট থেকে হারানোর বেদনায় কেঁদেছেন নিরবে। ফুলের শ্রদ্ধা আর নানা উপহার দিয়ে সংবর্ধিত করেছেন প্রিয় শিক্ষককে।

২০১৪ সালে অধ্যক্ষ পদে যোগদানের মাত্র কয়েক বছরের মাথায় কর্নেল কাজী শরীফ উদ্দিন মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজকে নিয়ে গেছেন এক অনন্য উচ্চতায়। সাফল্যের সেই ধারাবাহিকতা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে পৌঁছে গেছে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। তাঁর দক্ষ নেতৃত্বে রাজধানীর সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ অর্জন করেছে ২০১৯ সালের সবচেয়ে অনুপ্রেরণামূলক আন্তর্জাতিক সম্মাননা ইন্টারন্যাশনাল এডুকেটর ও বেস্ট প্রিন্সিপাল অব দ্য ইয়ার।

‘সেরা ইন্সটিটিউশন এবং বেষ্ট প্রিন্সিপাল অব দ্যা ইয়ার ২০১৮ এ্যাওয়ার্ড’পুরস্কারও যৌথভাবে পেয়েছিলেন অধ্যক্ষ কর্নেল কাজী শরীফ উদ্দিন। গতবছর ২৩ ডিসেম্বর দুবাইয়ের ‘লা মেরিডিয়ান হোটেল’লাউঞ্জে অধ্যক্ষ কাজী শরীফ উদ্দিনের হাতে পদক ও পুরস্কার তুলে দেন আয়োজক পক্ষ। এসব অর্জন ছাড়াও পরপর দু’বছর তিনি ও তাঁর শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৭ ও ২০১৮-তে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ‘সেরা প্রতিষ্ঠান ও শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধানের অনন্য স্বীকৃতিও লাভ করেছে।

আজ (২৭শে ডিসেম্বর) প্রিয় এই অভিভাবকের বিদায়বেলায় শুভান্যুধায়ীদের অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবেগঘন স্ট্যাটাস পোষ্ট দিয়েছেন। সাংবাদিক দেলোয়ার জালালী তাঁর ফেসবুক পোষ্টে লিখেছেন,

‘‘অভিবাদন, কর্ণেল কাজী শরীফ উদ্দিন কর্ণেল কাজী শরীফ উদ্দিন, এক চৌকস সেনা কর্মকর্তা। একজন দক্ষ প্রশাসক এবং আদর্শবান শিক্ষক। অসাধারণ গুনের অধিকারী অভিভাবক, মানবিক মানুষ। কয়েক বছর আগে রাজধানীর সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন। তিনি দায়িত্ব নেয়ার মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ একটি আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রুপ পেয়েছে। মোহাম্মদপুর শিক্ষা জোনের আওতায় ৬২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পরপর কয়েক বছর প্রথম স্থান অধিকার করে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের বিবেচনায়। ইতোমধ্যেই অর্জন করেছে দেশি-বিদেশি অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননা। প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ হিসেবেও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সম্মাননা পেয়েছেন কর্ণেল কাজী শরীফ উদ্দিন। পিইসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় অসাধারণ ফলাফল অর্জন করছে প্রতিষ্ঠানের ছাত্ররা। মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রদের কঠোর শৃঙ্খলার মধ্য লালন করেছেন তিনি। এক আদর্শবান জাতি গঠনে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন কাজী শরীফ উদ্দিন। পিতৃস্নেহে নিরবে কাজ করেছেন তিনি। একজন অভিভাবক হিসেবে আরো কিছু দিন তাঁর ছোঁয়া চেয়েছিলাম। অভিবাদন কর্নেল কাজী শরীফ উদ্দিন। যেখানেই থাকুন ভালো থাকুন, নিরাপদ থাকুন। আপনার সাফল্য, সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি”।

উল্লেখ্য, জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) এর সর্বোচ্চ কোর্স এসএসসিএমে প্রথম স্থান অধিকার ও চেয়ারম্যান’স অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত হওয়ায় কর্নেল শরীফকে নায়েমের নিয়মিত প্রশিক্ষক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। দক্ষ প্রশাসক ও যোগ্য প্রশিক্ষক এই কর্মকর্তা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান হতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আমেরিকার Arizona State University, অস্ট্রেলিয়া Brisbane এর Queensland University of Technology, সিঙ্গাপুরের National University of Singapore এবং মালয়েশিয়ার University of Kualalampur অন্যতম। শরীফ দেশের প্রিন্ট এবং ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় একজন পরিচিত ব্যক্তিত্ব। তিনি বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকা এবং টিভি চ্যানেলে শিক্ষা বিষয়ক সাক্ষাতকার এবং পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

এছাড়াও তাঁর ব্যক্তিগত অর্জনের খাতাও অনেক লম্বা। তিনি বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে ২০১৮ এবং ২০১৯ সালে ৬২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পেছনে ফেলে থানা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান ছাড়াও ২০১৮ সালে দুবাই থেকে “Best Principal”এবং ২০১৯ সালে ব্যাংকক Common Wealth University থেকে “Best Educator” এবং ২০২০ সালে লন্ডন থেকে “Excellence in Quality” Award by Achievement Forum, Oxford, UK স্বীকৃতি অর্জন করেন।