উপমহাদেশের আরেক নক্ষত্র পণ্ডিত যশরাজের বিদায়

0
5

আলোর যুগ বিশ্ব: পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ এবং পদ্মশ্রীর মতো একাধিক পুরস্কার রয়েছে পণ্ডিত যশরাজের ঝুলিতে। শাস্ত্রীয়সংগীত দুনিয়ার এই নক্ষত্রপতনে শোকস্তব্ধ শিল্পীমহল। গত জানুয়ারিতে ৯০-এ পা দিয়েছিলেন তিনি।

১৯৩০ সালের জানুয়ারি মাসে হরিয়ানার হিসার জেলার পিলি মন্দোরিতে জন্মগ্রহণ করেন যশরাজ। মধ্যবিত্ত ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্ম। শাস্ত্রীয় সংগীতের প্রতি অনুরাগ ছিল শৈশব থেকেই। বাবা পণ্ডিত মতিরামের কাছেই প্রথম তালিম।

ছোটোবেলার অনেকটা সময় হায়দরাবাদে কাটিয়েছিলেন যশরাজ। পরবর্তীকালে গুজরাতের সানন্দে অনেক দিন কাটিয়েছিলেন তিনি মেওয়াতি ঘরানার সংগীতের তালিম নেওয়ার জন্য।

মহারাজ জয়বন্ত সিং বাঘেলার জন্যও একাধিকবার সংগীতানুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। ১৯৪৬ সালে কলকাতায় চলে আসেন পণ্ডিত যশরাজ। রেডিওতে শাস্ত্রীয়সংগীত গাওয়ার তালিম দিতেন তিনি।

গত বছর সেপ্টেম্বরে মঙ্গল এবং বৃহস্পতিবার মধ্যে চিহ্নিত হওয়ার একটি ক্ষুদ্র গ্রহের নামকরণ পণ্ডিত যশরাজের নামে করা হয়েছিল।