মৃত্যুর এক বছর পর কবর থেকে মৃতদেহ উত্তোলন!

0
67
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

ফুলবাড়ি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে মৃত্যুর (১) এক বছর পর মোজাহার আলী (৪৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুদেহ কবর থেকে উত্তোলন করেছে পুলিশ।

৭ এপ্রিল রবিবার বেলা ১২টায় পৌর এলাকার দক্ষিন কৃষ্ণপুর কবস্থান থেকে, মৃত্যু ব্যক্তির ময়না তদন্তের জন্য আদালতের আদেশে, উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেড ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরীর উপস্থিতে এই মৃত্যুদেহটি উত্তোলন করা হয়। এসময় মামলার তদন্তকারী সংস্থা পিবিআইবি দিনাজপুর এর ওসি পুলিশ পরিদর্শক আবু হানিফ ও তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মইনুল ইসলামসহ পুলিশ কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

মৃত মোজাহার পৌর এলাকার কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত সমসের আলীর ছেলে। প্রতি পক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল মৃত্যু বরন করেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মইনুল ইসলাম বলেন, গত ২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর প্রতিবেশি এ ওসমান আলীর ছেলে জহুরুল ইসলাম ও তার সঙ্গিদের সাথে ঝগড়া বিবাদের কারনে সংঘর্ষ হয়, সেই সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের আঘাতে মোজাহার সহ প্রায় ৮জন আহত হয়। এই ঘটনায় মোজাহারের ছোট ভাই মাসুদ রানার স্ত্রী পারভিন বেগম ওই মাসের ৭ তারিখে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বিচারাধীন অবস্থায়, গত ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল আহত মোজাহারের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় বাদির আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত মোজারের ময়না তদন্তের জন্য আদেশ দিলে, মৃত মোজাহারের মৃতদেহটি কবর থেকে উত্তোলন করে আলামত সংগ্রহ করা হলো।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেড আব্দুস সালাম চৌধুরী বলেন, আদালতের আদেশে মৃত ব্যক্তি মোজাহারের মৃতদেহটি ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে উত্তোলন করে, আলামত সংগ্রহ করে ময়ণা তদন্তের জন্য মেডিকেল ফরেন্সিক বিভাগে প্রেরন করা হল।

মামলার বাদি পারভিন বেগম বলেন, আসামীদের দেশিয় অস্ত্রের আঘাতের কারনে মোজাহারের মৃত্যু হয়েছে, এখনো গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে আরো দুই জন।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ