সৃষ্টিকর্তা আমাকে ১৯৯ রানই দিয়েছে: ম্যাথুজ

0
5

আলোর যুগ স্পোর্টসঃ সাকিবের তালুবন্দী হতেই হতাশায় ব্যাট দিয়ে প্যাডে আঘাত করেন অ্যাঞ্জেলি ম্যাথুজ। নাঈম হাসানের ফাঁদে পা না দিলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরির উচ্ছ্বাসে মেতে উঠতেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক ম্যাথুজ। কিন্তু সামান্য ভুলে আউট হন ১৯৯ রানে। ১৪৫ বছরের টেস্ট ইতিহাসে ২৪৬২ নম্বর টেস্টে ১৪ নম্বর ক্রিকেটার হিসেবে ১৯৯ রানে আউট হন ম্যাথুজ।দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন ম্যাথুজ। কতোটা খারাপ লাগছিল তার? জানতে চাওয়া হলে বলেছেন, ‘নিশ্চিতভাবে আরও একটি রান পেলে অনেক ভালো লাগতো। কিন্তু সৃষ্টিকর্তা আমাকে ১৯৯ রানই দিয়েছে। এজন্য আমি কৃতজ্ঞ। ভালো লাগছে এরকম একটি ইনিংস খেলেছি। আশা করছি ম্যাচটা জিততে এই ইনিংস ভূমিকা রাখবে।’

১৫৩ ওভারের ষষ্ঠ বলে আউট হন ম্যাথুজ। ৩৯৭ বলে ১৯ চার ও ১ ছক্কায় ম্যাথুজ সাজান তার ইনিংসটি। এজন্য ৫৭৮ মিনিট ক্রিজে থাকতে হয়েছে। ১১৪ রানে দিন শুরু করা এ ব্যাটসম্যান শুরু থেকেই বেশ সাবলীল হয়ে ব্যাটিং করেছেন। ধীর স্থির থেকে বড় করেছেন ইনিংস। সঙ্গীদের আসা-যাওয়ার মিছিলে এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিল ডাবল সেঞ্চুরিটা হবে না। কিন্তু মনোবলে কোনো চিড় ধরতে না দিয়ে ম্যাথুজ দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন।

তবে শেষমেশ বাজে শটে ফেরেন সাজঘরে। নিজের আউট নিয়ে তার ব্যাখ্যা, ‘আমি আগেই ভেবে রেখেছিলাম এমন শট খেলবো। ঠিকঠাক যোগাযোগ হয়নি। এটা দূর্ভাগ্যজনক ঘটনার একটি। শেষ ব্যাটসম্যান বলেই আমি শেষ বলে রান নিতে চেয়েছিলাম। আমি এক রান নিয়ে ডাবল সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে চেয়েছিলাম। হিসেবে গণ্ডগোল করেছি। দূর্ভাগ্যবশত বাজে শটে সাকিবের হাতে ক্যাচ চলে যায় (হাসি)। সত্যিই বলছি, ওই রানটা পেলে ভালো লাগতো।’এই মাঠে কুমার সাঙ্গাকারার ট্রিপল সেঞ্চুরি আছে। সেই মাঠেই ম্যাথুজ ১৯৯ রানে আউট। ক্রিকেট বিশ্বের ১২তম ব্যাটসম্যান হিসেবে এই রানে ফেরেন সাজঘরে। সাঙ্গাকারা একবার ১৯৯ রানে নট আউট ছিলেন। সবই ম্যাথুজের জানা। তাইতো আক্ষেপ করছেন কম, ‘ও আমাকে জানিয়েছে, আমি ১২তম ব্যাটসম্যান যে কিনা ১৯৯ রানে আউট হয়েছি। কুমার সাঙ্গাকারাও এরকম ১৯৯ রানে নট আউট ছিল। আমি সেই ম্যাচটা খেলেছি।’