সুনামগঞ্জে পৃথক অভিযানে ৪লাখ টাকার অবৈধ মালামাল জব্ধ

0
44
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে তাহিরপুর,দোয়ারা বাজার ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে গাজা,বিড়ি,সুপারী,মদ,ডালসহ ৪লাখ টাকার মালামাল জব্ধ করেছে বিজিবি। এছাড়াও ১টি মটর সাইকেলসহ ১জনকে আটক করে।

কিন্তু অদৃশ্য কারনে এর সাথে জরিত মূল হুতাদের ধরছে না বিজিবি। আর এসব মালামাল আটক করলেও এর সাথে জরিতরা কি ভাবে পালিয়ে যায় তা প্রশ্ন তুলেছে সীমান্তের বসবাসকারী স্থানীয় এলাকাবাসী। তারা অভিযোগ করে বলেন,বিজিবি খবর পায় চোরাচালানা হচ্ছে কারা করছে কোথায় করছে আর কিভাবে কারা এর সাথে জরিত তাদের নামও তারা জানে। তাহলে ঐসব লোকজন কিভাবে পালিয়ে যায়। সব সময় বিজিবি চোরাচালানীরা পালিয়ে যায় যার বলে তা মানা যায় না। ফলে তাদের মাঝে র্দীঘ দিন ধরেই চরম ক্ষোব বিরাজ করছে।

সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়ন ২৮বিজিবির অধিনায়ক মোঃ মাকসুদুল আলম জানান,সোমবার(২২এপিল)ভোর রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার মাছিমপুর বিওপির টহল বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ধনপুর ইউনিয়নের গামারীতলা থেকে ৮কেজি ভারতীয় গাঁজা,০১টি টর্চ লাইট এবং ০১টি মোটর সাইকেলসহ জজ মিয়া(২২)নামে এক জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত আসামী জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার গামারীতলা গ্রামের নজম উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিশ্বম্ভরপুর থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আটককৃত মালামালের আনুমানিক মূল্য ৮৩,৬০০টাকা। অন্যদিকে,চিনাকান্দি বিওপির টহল দল রবিবার (২১এপ্রিল)সন্ধায় বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রাম থেকে ৫,৮৮০প্যাকেট ভারতীয় নাসির বিড়ি আটক করে, যার মূল্য ২,৪৯,৯০০/- টাকা। কিন্তু এসময় কাইকে আটক করতে পারে নি।

তাহিরপুর উপজেলার মাটিরাবন বিওপির টহল দল রবিবার(২১এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টার সময় ধর্মপাশা উপজেলাধীন উত্তর বংশীকুন্ডা ইউনিয়নের গিলাগড়া নামক স্থান হতে ২৪৬ কেজি ভারতীয় সুপারী আটক করে। যার আনুমানিক মূল্য ২৪,৬০০টাকা।

অন্যদিকে, দোয়ারাবাজার উপজেলার মাঠগাঁও বিওপির টহল দল রবিবার (২১এপ্রিল)দিন গত রাত সাড়ে ১২টার সময় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার রংগাছড়া ইউনিয়নের প্যাচকোনা এলাকা থেকে ৫৫০কেজি বাংলাদেশী মটর ডাল আটক করে যার আনুমানিক মূল্য ২২,০০০/- টাকা।

আটককৃত ভারতীয় নাসির বিড়ি,সুপারী এবং মটর ডাল শুল্ক কার্যলয় সুনামগঞ্জে জমা করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। চোরাচালানীদের আটক করতে আমরা সবোর্চ্ছে চেষ্টা করছি।

 


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ