সাভারে সরকারী জমি দখল করে অন্ধ সংস্থার মার্কেট নির্মানে ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ

0
82

জাভেদ মোস্তফা
সাভারঃ সাভারে প্রশাসনের নির্দেশনা উপেক্ষা করেই সরকারী জমি দখল করে অন্ধ কল্যান সংস্থার বহুতল ভবনের বর্ধিতাংশ নির্মান করছে একটি অসাধু চক্র। এতে ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে পুরো মার্কেটটি। ব্যবসায়ীদের মাঝে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ।
সরেজমিনে দেখা গেছে, সাভার বাজার বাসষ্ট্যান্ডস্থ অন্ধ কল্যান সংস্থার মার্কেটটিতে দোকান রয়েছে সহস্রাধীক। মার্কেটটি নির্মানের পর নকশা বহির্ভুতভাবে ঝুকিপূর্ণভাবে নির্মানকাজ করায় মার্কেটটির ব্যবসায়ীদের দাবীর মুখে বুয়েটের ইঞ্জিনিয়ার পরীক্ষা শেষে মার্কেটটি ঝুকিপূর্ণ উল্লেখ করে তার বর্ধিতাংশ ভেঙ্গে ফেলার সুপারিশ করে। পরবর্তীতে স্থানীয় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দ্রুত মার্কেট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহনের জন্য নির্দেশ প্রদান করে।

মার্কেট কর্তৃপক্ষ প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করেই সম্প্রতি সরকারী জমি ও ড্রেন দখল করে মার্কেটটি সম্প্রসারনের কাজ শুরু কর। এতে পুরো মার্কেটটি ঝুকির মধ্যে পড়ে যায়। উপায়ন্ত না পেয়ে মার্কেটটির ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে এর প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি ফের উপজেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত শনিবার দুপুরে অন্ধ কল্যান সংস্থার নির্মানাধীন মার্কেটটি পরিদর্শন করে মার্কেট সম্প্রসারনের সত্যতা পেয়ে তা বন্ধের জন্য তাৎক্ষনিক নির্দেশনা প্রদান করে।
এঘটনায় আঃ রহিম, রুবেল মন্ডল, আঃ রশিদ, জাকিরসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে ব্যবসায়ী পাভেল আহাম্মেদ।
স্থানীয় ব্যবসায়ী সোহেল, রমজানসহ অন্যরা জানান, সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভুতভাবে মার্কেটটি সম্প্রসারন করা হচ্ছে। এতে করে যে কোন সময় মার্কেটটি ধ্বসে পরে রানা প্লাজার মতো দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ থেকে পরিত্রানের জন্য সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।
সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্য দীপক সাহা বলেন, বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম জানান, ইতিপূর্বেও মার্কেটটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। কাগজ-পত্রাদি পর্যালোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
সাভার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব বলেন, সাভারে দখলদারদের কোন ছাড় নেই। স্থানীয় প্রশাসন এ ব্যপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে।