সাভারের ধামসোনা ইউপি নির্বাচন নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ থাকলেও নির্বাচন কমিশনের গড়িমসি

0
86

জাভেদ মোস্তফা, সাভার
সাভার উপজেলার ১২টি ইউপির মধ্যে শুধুমাত্র ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থাগিত করে যথা সময় ১১ টি ইউপিতে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত রাখায় এলাকার সুশীল নাগরিকদের মাঝে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের বিধি বিধান ও নির্বাচন কমিশনের ভুমিকা নিয়ে নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। এলাকাবাসী অতি দ্রুত এই ইউপিতে নির্বাচন দেয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন বরাবর জোড় দাবী জানিয়েছে।
এ ছাড়াও নির্বাচন দিতে নির্বাচন কমিশনকে বিবাদী করে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনে আশুলিয়ার গোপালবাড়ী এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে রুহুল কুদ্দুস ধামসোনা ইউপির নির্বাচন চেয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের সচিব সহ প্রধান নির্বাচন কমিশনার, সেক্রেটারি নির্বচন কমিশনার,ডিপুটি সেক্রেটারি ইলেকশন কমিশনার,ইলেকশন কমিশনারের ডিপুটি ডাইরেক্টর,ঢাকা জেলার ইলেকশন কর্মকর্তা,সাভার উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিবাদী করে ৯ জনকে বিবাদি করে একটি রীট পিটিশন দায়ের করেন।বিচারপতি মিসেস ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জনের রিট পিটিশন এর শুনানী গ্রহন করেন এবং অতি সত্তর ঐ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশনকে আদেশ প্রদান করেন।
পিটিশনে রুহুল কুদ্দুস উল্ল্যেখ করেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচনের আইন অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের মেয়াদ কাল হবে ৫ বছর। মেয়াদ শেষের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে হবে। এ ছাড়া যদি কোন দৈব দুর্বিপাক জনিত কোন কারণে ৫ বছর মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত সম্ভব না হইলে সরকার লিখিত আদেশ দ্বারা ৯০ দিন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট পরিষদকে কার্যক্রম পরিচালনা করতে ক্ষমতা প্রদান করতে পারিবে। তিনি জানান, বিগত ২০ ডিসেম্বর ২০২১ ইং তারিখের রীট পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২ ইং তারিখে বিচারকদের আদেশনুযায়ী কোন ধরনের অনিয়ম না করে নির্বাচনের বিধিবিাধাননুযায়ী অতি দ্রুত ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন করার জন্য নির্বাচন কমিশনার বরাবর আদেশ প্রদান করেছেন।
ধামসোনার ইউপির নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে ইচ্ছুক এমন চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীরা জানান,আশুলিয়া ইউপির ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও অজ্ঞত কারনে নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। এ ব্যাপারে হাই কোর্টে রিট করার পরও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশন স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন নিয়ে গড়িমসি করছে। তবে একটি অসমর্থিত সুত্র দাবী করেছে যে, উক্ত ইউনিয়নকে পৌরসভা ঘোষনা করা হতে পারে এই মর্মে উক্ত ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত রাখা হয়েছে। তবে এ ধরনের কোন আদেশ বা প্রজ্ঞাপন এখন পর্যন্ত কোন মহল থেকে পাওয়া যায় নি।