শ্রীলংকায় জঙ্গিদের সঙ্গে সেনাদের গুলিবিনিময়ে নিহত ১৫

0
20
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

ক্রাইম অনুসন্ধান ডেস্ক: শ্রীলংকার পূর্ব উপকূলে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সন্দেহভাজন জঙ্গিদের রাতভর গোলাগুলির পর ছয় শিশুসহ ১৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

গির্জা-হোটেলসহ গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি স্থাপনায় একযোগে বোমা বিস্ফোরণের ছয়দিন পর এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটল বলে কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। গত সপ্তাহের ওই সন্ত্রাসী হামলায় আড়াইশরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।

সমন্বিত ওই হামলার জন্য ন্যাশনাল তওহীদ জামাত নামে একটি উগ্রবাদী সংগঠনকে দায়ী করছে লংকান সরকার। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটও (আইএস) হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর বিস্তৃত অভিযানের মধ্যেই শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় বাত্তিকোলা শহরের দক্ষিণে আম্পারার সাইন্থুমারুথু এলাকায় সন্দেহভাজন মুসলিম জঙ্গিদের সঙ্গে গোলাগুলি শুরু হয় বলে কর্মকর্তারা জানান।

রাতভর চলা এ সংঘাতের এক পর্যায়ে চার বন্দুকধারী ও এক বেসামরিকের মৃতু্যর খবর জানানো হয়েছিল। অভিযান শেষে সকালে মোট ১৫ জনের মৃতদেহ পাওয়া যায়।

বাত্তিকোলার যে জায়গায় এ গোলাগুলি হলো, তার কাছের একটি স্থাপনাও রোববারের বোমা হামলায় ক্ষতবিক্ষত হয়েছিল।

দক্ষিণ এশীয় এ দেশটিতে আরও সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে যুক্তরাষ্ট্র সতর্কও করেছে। জনসাধারণকে মসজিদ-গির্জাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয় আপাতত এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছে লংকান কর্তৃপক্ষ।

কলম্বোর আর্চবিশপ ম্যালকম রঞ্জিত শ্রীলংকার ক্যাথলিক চার্চের রোববারের প্রার্থনা ও সব কর্মসূচি বাতিল করেছেন।

৩ শহরে কারফিউ জারি

শ্রীলংকায় কয়েক দফা ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় বিভিন্ন শহরে অভিযান চালাচ্ছেন দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। এরই মধ্যে কয়েকটি স্থান থেকে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) পোশাক ও পতাকাসহ বিভিন্ন বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে। এসব ঘটনার জেরে দেশটির কয়েকটি শহরে অনির্দিষ্টকালের কারফিউ জারি করেছে সরকার।

নিরাপত্তা বাহিনীর বরাতে শনিবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) থেকে কারফিউর সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত পূর্বাঞ্চলীয় কালমুনাই, চাভালাকাদে এবং সামানথুরাই শহরে প্রতিদিন রাত পৌনে ৯টা থেকে পরদিন ভোর ৪টা পর্যন্ত প্রায় আট ঘণ্টা কারফিউ জারি থাকবে।

পুলিশ আরও জানায়, গোয়েন্দা খবরের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে সামানথুরাই শহরে অভিযান চালানো হয়। এতে সেখান থেকে আইএসের পোশাক ও পতাকাসহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য ও ড্রোন ক্যামেরা উদ্ধার করা হয়।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ