ফেনীতে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

0
35
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

ফেনী প্রতিনিধি: ৭ই এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। সারা বিশ্বে প্রতি বছর যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় “সমতা ও সংহতি নির্ভর সর্বজনীন প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা” এ প্রতিপাদ্যের আলোকে জাতিসংঘের অন্যান্য সদস্য রাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশ ও দিবসটি পালন করছে।

দিবসটি উপলক্ষে গতকাল রবিবার ফেনীতে বর্ণাঢ্য র্যালি, আলোচনা সভা ও রক্ত দান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করা হয়।

দিনটি উপলক্ষে সকালে একটি র্যালি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে সিভিল সার্জন অফিসের অডিটোরিয়াম এ আলোচনা সভায় মিলিত হয়।
আলোচনা সভা শেষে রক্ত দান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

র্যালি, আলোচনা সভা ও রক্ত দান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন ফেনী জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান।

ফেনীর (ভারপ্রাপ্ত) সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাজ্জাদ হোসেন এর সভাপতিত্বে, ফেনী সিভিল সার্জন অফিসের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ সাইফুদ্দিন মাহমুদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন, ফেনী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক সদর হাসপাতালের (ভারপ্রাপ্ত) তত্বাবধায়ক ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, ফেনী জেলা বিএমএ এর সাধারণ সম্পাদক ডাঃ বিমল চন্দ্র দাস, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর ফেনীর উপ-পরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম প্রমূখ।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ইফতেখার আহম্মেদ চৌধুরী, ফেনী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (RMO) ডাঃ আবু তাহের, নার্সিং ইনস্টাকটর সিদ্দিকুর রহমান, এমওসিএস ডাঃ রুবাইয়াত বিন করিম, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক মোঃ দিদারুল আলম ভূঞাঁ, জেলা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি হারুন উর রশিদ।

এ সময় জেলা উপজেলার স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের কর্মকর্তা গন উপস্হিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের সরকার যেখানে স্বাস্হ্য সেবায় কোটি কোটি টাকা খরচ করছেন প্রতিটি নাগরিকের স্বাস্হ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য। সেখানে ডাক্তারদেরকে ও শুধু ব্যবসায়িক দিক চিন্তা না করে প্রতিটি নাগরিককে সঠিকভাবে স্বাস্থ্য সেবা দিতে হবে। এতে করে ডাক্তারদের সম্পর্কে মানুষের যে নেতিবাচক ধারণা আছে তা পাল্টে যাবে। সাধারণ মানুষ ডাক্তারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবে।

 


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ