ফেনীর নগ্নতা : চলছে খুন, ধর্ষণ ও বলাৎকারের মহড়া

0
35
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

জহিরুল কামরুল, ফেনী প্রতিনিধি: এবার ফেনীর দাগনভূঞাঁয় কওমি মাদ্রাসায় ছাত্রকে বলৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (১৫ এপ্রিল) উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের কোরাইশমুন্সি দারুল কোরআন মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোরাইশমুন্সি বাজার সংলগ্ন আবদুল নবী গ্রামে অবস্থিত ওই মাদ্রাসার শিক্ষক শহিদুর রহমান (৫৩) কর্তৃক গত রবিবার (১৪ এপ্রিল) দিবাগত রাতে বলৎকারের শিকার হন একই মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ৮ বছর বয়সী এক আবাসিক ছাত্র।

সোমবার বিকালে এ ঘটনার খবর পেয়ে সন্ধ্যার পর মাদ্রাসা থেকে ওই লম্পট শিক্ষককে আটক করে নিয়ে যায় কোরাইশমুন্সি ফাঁড়ি পুলিশ। ৫৩ বছর বয়স্ক ওই লম্পট শিক্ষকের বাড়ী পাশ্ববর্তী সেনবাগ উপজেলার উত্তর জয়নগর গ্রামে।

কোরাইশমুন্সি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নির্যাতনের শিকার ওই শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলে আমরা অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করি।

উল্লেখ্য এপ্রিল মাসে ফেনীর সোনাগাজীতে নুসরাত জাহান রাফি নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা, আবু সালেহ মীম নামে সোনাগাজী চরগনেশ এলাকার ঢাকা পলিটেকনিকের এক শিক্ষার্থীকে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা, দাগনভূঞাঁ যশপুরে ৫ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ধর্ষণের মাধ্যমে গর্ভবতী, দাগনভূঞাঁ ৮ম শ্রেণির এক ছাত্র তার সহপাঠীকে গলা কেটে হত্যা ও সবশেষে মাদ্রাসার শিক্ষক কতৃক শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের মাধ্যমে ফেনী আবারো সারা দেশে নগ্নভাবে উপস্হাপিত হলো।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ