নড়াইলের উন্নয়ন কাজে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ছুঁটছেন : নড়াইল এক্সপ্রেস

0
41
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের একটা জেলায় তিনটা সাধারন মনের অসাধারণ মানুষ হলে আর কি লাগে, ব্যক্তি হচ্ছেন ক্রিকেট অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা, নড়াইলের জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার),। মনে হয় আমাদের নড়াইলের মানুষের এতো দিনের স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে শুরু করেছে।

অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো আপনাদের জন্য স্যার। কারন আপনারাই পারেন অবহেলিত নড়াইল বাসির মানুষের ভাগ্য বদলাতে। নড়াইল জেলার উন্নয়ন ও অগ্রগতি সাধনে সুদীর্ঘ বছরের জনপ্রত্যাশা পূরণে ধারাবাহিকভাবে মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রণালয়ে ছুঁটে চলেছেন নড়াইল-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সৌমেন চন্দ্র বসু তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, নড়াইলের সার্বিক উন্নয়নের জন্য মঙ্গলবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন এমপি মাশরাফী।

সৌমেন বসু লেখেন, “সকলের প্রিয় এই মানুষটিকে তাদের মন্ত্রণালয়ে পেয়ে উচ্ছ্বসিত কণ্ঠে মন্ত্রীগণ বলেন- ‘আপনি রাজনীতিতে এসে রাজনীতির রং বদলে দিয়েছেন । আমরা বক্তৃতায় আপনার গল্প বলি, যেমন নিউজিল্যান্ডে আপনি বলেছিলেন আমি পায়ের কথা চিন্তা করি না, আমি খেলি আমার দেশের পতাকার জন্য।’

শুরুতেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পৌছান মাশরাফী। সাক্ষাতে তিনি মন্ত্রী মহোদয়কে নড়াইল সদর ও লোহাগড়া হাসপাতালের বর্তমান অবস্থা নিয়ে কথা বলেন। সেখানে তিনি চিকিৎসকদের সংকট, পরিচ্ছন্নতার জন্য লোকবলের ঘাটতি, রোগীদের আসন সংখ্যার অপ্রাতুলতা, প্রসূতি মায়ের উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতকরণসহ নানা সমস্যা তুলে ধরেন।

নড়াইলে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে এম্বুলেন্সহীন অবস্থায় কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে জানান তিনি। সৌমেন জানান, এসময় মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা মন্ত্রীকে বলেন , “আমার নড়াইলের অধিকাংশ লোক নিম্ন আয়ের, সেখানে তারা তাদের মৌলিক অধিকার স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।”

ঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে মাশরাফীকে মন্ত্রী বলেন, “আপনার সকল আবেদন আমি গুরুত্বের সাথে দেখছি।” সেসময় মন্ত্রী মহোদয় উল্লেখ্য সমস্যা সমাধানে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থাগ্রহণের নির্দেশ দেন জানান সৌমেন।

এরপর পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে পদচারণ করেন নড়াইল এক্সপ্রেস। কিছুদিন আগে নিজের নির্বাচনী এলাকার নদী ভাঙ্গন কবলিত স্থানগুলো পরিদর্শন করেছিলেন মাশরাফী। এসময় ভাঙন কবলিত মানুষদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। সেকথা রাখতেই এই মন্ত্রনালয়ে পা রাখেন তিনি।

এমপি মাশরাফী পানিসম্পদ উপমন্ত্রীকে নড়াইলের ভাঙন কবলিত এলাকা ও সেখানকার মানুষের দুর্দশার কথা জানান। তিনি বলেন, প্রতিবছর এসকল এলাকায় ভিটামাটি হারা হচ্ছে হাজারো মানুষ, কোমল মতি ছাত্র-ছাত্রীরা হারাচ্ছে তাদের বিদ্যাপিঠ।

বিষয়গুলোতে গুরুত্বারোপ করে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী জানান, “নদী ভাঙ্গন রোধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি , এই বর্ষা মৌসুমে যেন মানুষের ভিটামাটি, বিদ্যালয রক্ষা পায় সেলক্ষ্যে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।”

সৌমেন লেখেন, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ে যান এমপি মাশরাফী। এসময় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী তাকে বলেন, “তুমি আমার এখানে এসেছো আমি খুব খুশি হয়েছি। তোমার এলাকার ধর্মপ্রাণ মানুষের জন্য যা যা করার সব আমি নিজ দায়িত্বে করে দেবো।”

এভাবেই খেলা ও অনুশীলনের ফাঁকে নিজ দ্বায়িত্ব বোধে অটল থেকে নড়াইলবাসীর কল্যাণে নিরলস কাজ করে চলেছেন, মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রণালয় হেটে চলেছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক ও নড়াইল ২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ