ধামরাইয়ে হাত-পায়ে কসটেপ পেঁচানো যুবকের মরদেহ উদ্ধার

0
31
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ


আলোর যুগ প্রতিনিধি ,ধামরাই
ঢাকার ধামরাইয়ে একটি গুপ্তহত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে । বুধবার সকালে হাত-পায়ে বাইন্ডিংকসটেপ ও গলায় কাপড় পেঁচানো খুন হওয়া অজ্ঞাত পরিচয় ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে ধামরাই থানা পুলিশ। ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের ডাউটিয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে এ মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মরদেহের ছুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দি হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে ধামরাই থানায় অজ্ঞাত খুনিদের আসামী করে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ধামরাই থানা পুলিশি সূত্র।

এগুপ্তহত্যাকান্ডের ঘটনায় জনমনে উদ্বেগ ও বেশ আতংকের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকদিন গুপ্তহত্যাকান্ডের ঘটনা বন্ধ ছিল।
স্থানীয় লোকজন জানান,বুধবার ভোরে কর্মমুখী মানুষজন কর্মস্থলে যাওয়ার সময় ধামরাইয়ে ডাউটিয়া এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের কার্পেটিং ঘেষাবস্থায় খুন হওয়া অজ্ঞাত পরিচয় ওই যুবকের মরদেহ দেখতে পায়। ওই মরদেহের হাত-পায়ে বাইন্ডিং কসটেপ ও গলায় কাপড় দিয়ে পেঁচানো ছিল। তাদের ধারনা অন্য কোন স্থান থেকে অজ্ঞাত পরিচয় ওই যুবকেকে অপহরনের পর মুখ বেঁধে হাত-পায়ে বাইন্ডিং কসটেপ দিয়ে পেঁচিয়ে গাড়ীযোগে রাতের আঁধারে ধামরাইয়ে নিয়ে আসে গুপ্তহত্যাকান্ড সংঘটিত করতে।
স্থানীয় লোকজন বিষয়টি ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আতিকুর রহমান আতিককে অবহিত করেন। এরপর তিনি ঘটনাস্থলে উপ-পুলিশ পরিদর্শক নুরমোহাম্মদকে পাঠান।উপ-পুলিশ পরিদর্শক সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে মরদেহের ছুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে মরদেহটি থানায় নিয়ে যান।
উপ-পুলিশ পরিদর্শক নুর মোহাম্মদ বলেন,মরদেহের ছুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দি হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ