‘দগ্ধ নুসরাতের ব্যাপারে আজও সিঙ্গাপুরে কথা বলা হবে’

0
26
শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ

ক্রাইম অনুসন্ধান ডেস্ক: ফেনীর সোনাগাজীতে দুর্বৃত্তদের আগুনে দগ্ধ মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির চিকিৎসার বিষয়ে সিঙ্গাপুর হাসপাতালে ফের কথা বলা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন। বুধবার সকালে গণমাধ্যমকে এ কথা জানান তিনি।

ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ‘নুসরাতের অবস্থা আগের মতোই আছে। সে এখনও শঙ্কামুক্ত নয়। আজকে আমরা আবার সিঙ্গাপুরে তার চিকিৎসার বিষয়ে কথা বলব।’

এর আগে মঙ্গলবার সকালে মাদ্রাসাছাত্রীর চিকিৎসার বিষয়ে সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করে কথা বলা হয়। কথা বলার পর তিনি গণমাধ্যমকে জানান, এ অবস্থায় দীর্ঘ পাঁচঘণ্টার প্লেনযাত্রা তার জন্য খুব ঝুঁকিপূর্ণ। এ জন্য এখন তাকে সিঙ্গাপুর পাঠানো ঠিক হবে না। শারীরিক অবস্থার একটু উন্নতি হলে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার সকাল ৯টার দিকে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে যায় রাফি। এরপর কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেওয়া হয়। সেখানে ৪/৫ জন বোরকা পরিহিত দৃর্বৃত্ত ওই ছাত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুর ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। দগ্ধ ছাত্রীর চিৎকারে সহপাঠী ও শিক্ষকরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে দুপুরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎকরা জানিয়েছেন, তার শরীরের ৮০ ভাগ দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

জানা গেছে, কিছুদিন আগে ওই ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি চেষ্টার অভিযোগে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলা বিরুদ্ধে মামলা করেন তার মা। এ অভিযোগে গত ২৭ মার্চ অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়। ওই মামলার জের ধরে অধ্যক্ষের অনুগত শিক্ষার্থীরা এই হামলা করেছে বলে দাবি করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার।


শেয়ার করে সকল কে জানিয়ে দিনঃ