চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনাকে উড়িয়ে দিলে ব্রাজিল

0
1

আলোর যুগ স্পোর্টসঃ ফুটবলের মাঠে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দৌরাত্ম সব কিছুকে ছাপিয়ে যায়। এই দুই দল মুখোমুখি মানেই টানটান উত্তেজনা। এবার কনমেবল অনূর্ধ-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপপর্বে আজ ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা। আগের ম্যাচে প্যারাগুয়ের কাছে হারায় আলবেলিস্তেদের জন্য ব্রাজিলের ম্যাচটি ছিল বাঁচা-মরার। তবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে পেরে উঠলো না আর্জেন্টিনা। ৩-১ গোলের বড় জয় পেয়েছে ব্রাজিল অনুর্ধ্ব-২০ দল। আর্জেন্টিনার যেখানে দুই হার, ব্রাজিলের সেখানে টানা দ্বিতীয় জয়।

কলম্বিয়ার এস্তাদিও অলিম্পিকো পাস্কুয়াল গেরেরো স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই বল দখলে থাকে আর্জেন্টিনার। তবে পাল্টা আক্রমণে যাওয়ার সুযোগ আসে ব্রাজিলের। ফলে অষ্টম মিনিটেই এগিয়ে যায় তারা। বক্সের ভেতর ডানপ্রান্ত  থেকে নেওয়া মারলন গোমেজের শট আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দিলেও ফিরতি শটে ঠিকই জালের ঠিকানা খুঁজে নেন গিলেরমো বিরো।

২৭ মিনিটে সমতা ফেরানোর সুবর্ণ সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করতে পারেননি হিনো ইনফান্তিনো। তার শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন ব্রাজিল গোলরক্ষক পোন্তেস মোরেইরা। ৩৬ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ব্রাজিল। মাঝমাঠ থেকে বল টেনে নিয়ে দারুণ চতুরতায় আর্জেন্টিনা গোলরক্ষককে বোকা বানান ব্রাজিল অধিনায়ক আন্দ্রে সান্তোস।

প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধেও কিছুটা মলিন থাকে ব্রাজিল। কিন্তু ৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনার ভুলের সুযোগ নিতে কোনো ভুল করেনি সেলেকাওরা। ডি বক্সের ভেতর ভিতোর রককে মাটিতে ফেলে দেন আর্জেন্টিনার ডি লোয়ো। পেনাল্টি থেকে সেই রকই ব্রাজিলের হয়ে ব্যবধান বাড়ানোর কাজটা করেন। ৯০ মিনিটে আর্জেন্টিনাকে গোল এনে দেন মাক্সি গঞ্জালেস। তবে তা শুধু ব্যবধানই কমায়।

আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২০ দলের কোচ হিসেবে আছেন জাতীয় দলের সাবেক ডিফেন্ডার হ্যাভিয়ের মাশচেরানো। দুই ম্যাচেই হেরে গ্রুপে পাঁচ দলের মধ্যে চারে আছে তার দল। অন্যদিকে দুই ম্যাচে দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে ব্রাজিল। এক ম্যাচ বেশি খেলে শীর্ষে আছে ৭ পয়েন্ট পাওয়া প্যারাগুয়ে। দুই গ্রুপের সেরা তিন দল খেলবে টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত পর্বে।